1. dainiksurjodoy24@gmail.com : admin2020 : TOWHID AHAMMED REZA
  2. editor@surjodoy.com : Daily Surjodoy : Daily Surjodoy
আমি খালি হাতে আসিনি। আপনাদের জন্য উপহার নিয়ে এসেছি। রংপুরে প্রধানমন্ত্রী
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৮:০৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
কলসকাঠী বন্দরের বয়োজ্যেষ্ঠ কাঞ্চন আলী হাওলাদারের ইন্তেকাল। তিনদিন ব্যাপী আক্কেলপুরে কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন চট্টগ্রামে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ধর্ষণের শিকার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী শাহ্ আমিনুর রহমান (রহ.) এর ৩১ তম বার্ষিক ওরস শরীফ অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অবৈধ কারখানায় অভিযান, ১ লাখ টাকা জরিমানা ও ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড লালমোহনে উপজেলা চেয়ারম্যান বিজয়ী আকতারুজ্জামান টিটব এমপি আনারের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে ঝিনাইদহে মানববন্ধন শাহজাদপুরে সবচে বড় গরু নাতিবাবু, দাম ১৫ লক্ষ টাকা ঢাকা জেলার শ্রেষ্ঠ এসআই হিসেবে সম্মাননা স্মারক গ্রহণ করেন মোঃ ফজলুল হক শাহজাদপুরে ডাঃ ইউনুস আলী খান স্বরণে দুইদিন ব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

আমি খালি হাতে আসিনি। আপনাদের জন্য উপহার নিয়ে এসেছি। রংপুরে প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২ আগস্ট, ২০২৩, ৫.৫৭ পিএম
  • ১০৮ বার পঠিত
  1.   স্টাফ রিপোর্টার ।।   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে ও নৌকা মার্কায় ভোট দিলে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয়। সেটা আমরা প্রমাণ করেছি। বিএনপি ক্ষমতায় আসলে হয় মঙ্গা। বুধবার (২ আগস্ট) বিকেলে রংপুর জিলা স্কুল মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিভাগীয় মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রংপুর বিভাগের মর্যাদা দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। আওয়ামী লীগ সরকার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেছে। আওয়ামী লীগ যতদিন সরকারে ছিল রংপুরে কখনও মঙ্গা হয়নি। খাদ্যের অভাব দেখা দেয়নি। দুর্ভিক্ষ দেখা দেয়নি। আওয়ামী লীগ উত্তরবঙ্গ থেকে মঙ্গা দূর করেছে।

তিনি বলেন, ‘যখন ৯৬ সালে ক্ষমতায় এসেছিলাম, তখনো মঙ্গা ছিল না কিন্তু ২০০১ সালে যখন ওই খালেদা জিয়া ক্ষমতায় আসে, ২ হাতে টাকা-পয়সা লুট করে। সে, তার ছেলেরা মিলে, এ দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলে। আবার দেশে মঙ্গা শুরু হয়। ২০০৮ এর নির্বাচনে আমরা সরকার গঠন করি। তারপর থেকে আমি যে পদক্ষেপ নিয়েছি, তারপর থেকে এ দেশের মানুষের কোনো কষ্ট হয় নাই।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, শন্তিপূর্ণভাবে মানুষ যাতে ভোট দিতে পারে সে ব্যবস্থা করেছি। ভোটার তালিকা করেছি, স্বচ্ছ ভোট বাক্স করেছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ করে দিয়েছি, উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি। ২০৪১ সালে মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য উন্নত দেশ রেখে যাব।

শেখ হাসিনা বলেন, বাবা, মা, ভাই হারিয়েছি। আমার হারাবার কিছু নেই। বাংলাদেশের জনগণই আমার পরিবার আমার সংসার। জনগণের জন্যই কাজ করে যেতে চাই।

সরকারপ্রধান বলেন, আমরা প্রত্যেক এলাকায় উন্নয়নের জন্য কাজ করেছি। নারীদের জন্য কাজের সুবিধা করে দিয়েছি। আমাদের কাজের লক্ষ্য দেশের ভাগ্য পরিবর্তন করা, দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নতি করা। এ অঞ্চলে জীবনেও দুর্ভিক্ষ দেখা দেবে না, মঙ্গা দেখা দেবে না। বাংলাদেশে কোনও ভূমিহীন মানুষ থাকবে না। তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তায়নও করবো।

তিনি বলেন, সবার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিতে পেরেছি। কয়লার দাম ও গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিদ্যুৎ নিয়ে কয়েকদিন কষ্ট হয়েছে। এরপর এখন ঠিক হয়ে গেছে। বিদ্যুতের আর কোনো সমস্যা থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, আমি খালি হাতে আসিনি। আপনাদের জন্য উপহার নিয়ে এসেছি। কতগুলো প্রকল্প উদ্বোধন করেছি। যাতে প্রত্যেকটা উন্নয়ন তরান্বিত হয় তার ব্যবস্থা করেছি।

এর আগে, দুপুর ২টায় তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি রংপুর সেনানিবাস হেলিপ্যাডে পৌঁছায়। এরপর সড়কপথে সার্কিট হাউজে যান প্রধানমন্ত্রী। সেখানে বিভাগীয় পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সভায় অংশ নেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Comments are closed.

© All rights reserved  2020 Daily Surjodoy
Theme Customized BY CreativeNews